Popular Choice Award Vote for your Athlete
Tamim Iqbal
Mahmudullah
Mustafizur Rahman
Ashraful Islam
Mabia Akter Simanto
Mahfuza Shaila

কুল বিএসপিএ পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড

ক্রীড়াক্ষেত্রে বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী পুরস্কার বিএসপিএ স্পোর্টস এওয়ার্ড। যা ১৯৬৪ সালে চালু হয়েছিল। গত অর্ধশতাব্দীরও বেশি সময় ধরে কয়েকশতাধিক ব্যক্তি, সংস্থা, প্রতিষ্ঠান পেয়েছে মর্যাদাপূর্ণ এই পুরস্কার। যা জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের আগে দেয়া শুরু হয়। গত বছরের মত এবারো স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের ব্র্যান্ড কুল এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান পৃষ্ঠপোষকতা করছে।

আগামী ৩০ জানুয়ারি রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে খেলোয়াড়, কর্মকর্তা, কোচ, সংগঠক, পৃষ্ঠপোষকদের মিলনমেলার এই আয়োজন অনুষ্ঠিত হবে। এবার ২০১৫ ও ২০১৬ সালের পুরস্কার দেয়া হবে। এবারই প্রথমবারের মত বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের নাম অনুষ্ঠানের দিন ঘোষণা করা হবে। তিনজন মনোনীতের নাম আজ ঘোষণা করা হচ্ছে। এছাড়াও অনুষ্ঠানকে আকর্ষণীয় করতে নানা আয়োজন ও চমক যুক্ত করা হচ্ছে।

ক্রীড়ালেখক সমিতির জুরি বোর্ডের বিবেচনায় সেরাদের পুরস্কৃৃত করার পাশাপাশি দর্শক ভোটে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড দেয়া হচ্ছে। যেখানে ছয়জনকে মনোনীত করা হয়েছে। আজ থেকে এই ভোটিং শুরু হয়েছে বিএসপিএ-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.bspa.com.bd-তে। সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত ক্রীড়াবিদ পাবেন পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড। যা ঘোষণা ও তুলে দেয়া হবে কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে।

২০১৫ সালের পুরস্কারপ্রাপ্তরা

বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ (মনোনীত তিন)        মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ-সৌম্য সরকার-মোস্তাফিজুর রহমান (ক্রিকেট)

সেরা ক্রিকেটার                    মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ
সেরা দাবাড়–                     মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান
সেরা আর্চার                    তামিমুল ইসলাম
উদীয়মান ক্রীড়াবিদ                সারোয়ার জামান নিপু (ফুটবল)
সেরা সংগঠক                    ইউসুফ আলী
বর্ষসেরা কোচ                    সৈয়দ গোলাম জিলানী (ফুটবল)
বর্ষসেরা স্পন্সর প্রতিষ্ঠান                ম্যাক্স গ্রুপ
বিশেষ সম্মাননা                    আমিনুল হক মনি

২০১৬ সালের পুরস্কারপ্রাপ্তরা

বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ (মনোনীত তিন)    মাহফুজা খাতুন শিলা (সাঁতার)-তামিম ইকবাল (ক্রিকেট)-আশরাফুল ইসলাম (হকি)

সেরা ক্রিকেটার                তামিম ইকবাল
সেরা ভারোত্তোলক            মাবিয়া আক্তার সীমান্ত
সেরা হকি খেলোয়াড়            আশরাফুল ইসলাম
সেরা শ্যূটার                শাকিল আহমেদ
সেরা ভলিবল খেরোয়াড়            সাঈদ আল জাবির
উদীয়মান ক্রীড়াবিদ            মেহেদী হাসান মিরাজ
উদীয়মান নারী ক্রীড়াবিদ            কৃষ্ণা রানী সরকার (ফুটবল)
সেরা কোচ                গোলাম রব্বানী ছোটন (ফুটবল)
সেরা সংগঠক                তরফদার মোহাম্মদ রুহুল আমিন
সেরা সংস্থা                বাংলাদেশ নৌ বাহিনী

পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড (মনোনীত ছয়)

১. তামিম ইকবাল        ক্রিকেট
২. মাহফুজা খাতুন শিলা        সাঁতার
৩. মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ        ক্রিকেট

৪. মোস্তাফিজুর রহমান        ক্রিকেট
৫. মাবিয়া আক্তার সীমান্ত        ভারত্তোলন
৬. আশরাফুল ইসলাম        হকি

Read More...

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির ২০১৬ সালের সাধারণ সভা ১৭ ডিসেম্বর শনিবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি মোস্তফা মামুন। সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপন করেন সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ান উজ জামান। আর্থিক হিসাব উপস্থাপন করেন অর্থ সম্পাদক সুদীপ্ত আহমদ আনন্দ। সাংগঠনিক সম্পাদক সামন আহমেদ তুলে ধরেন শাখা সমিতির অবস্থা। আলোচনা শেষে রিপোর্টসমূহ অনুমোদিত হয়।
সমিতির দেড় শতাধিক সদস্য বার্ষিক সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

শুরু হলো বিএসপিএ পপুলার চয়েজ পুরষ্কার

বছর ঘুরে ফিরে এলো কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড। আগামী বছরের শুরুতে জমকালো আয়োজনে তুলে দেয়া হবে ২০১৫ ও ২০১৬ সালের সেরাদের পুরষ্কার। ক্রীড়াক্ষেত্রে বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী এই পুরস্কার দিয়ে আসছে বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসপিএ)। দেশের ক্রীড়াসাংবাদিক ও লেখখদের সবচেয়ে পুরনো সংগঠন বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৬২ সালে। ১৯৬৪ সাল থেকে সেরা খেলোয়াড়-কর্মকর্তা-সংগঠক-পৃষ্ঠপোষকদেও পুরষ্কৃত করার এই ধারা চালু হয়।

গতবারের ধারাবাহিকতায় এবারো বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড পৃষ্ঠপোষকতা করছে দেশের অন্যতম বৃহৎ করপোরেট প্রতিষ্ঠান স্কয়ার গ্রুপ। তাদের ব্র্যান্ডকুল-এর সৌজ্যনে বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড নামকরণ করা হয়েছে কুল-বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড নামে।

গতবারের ধারাবাহিকতায় দর্শক ভোটে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড বেছে নেয়া হবে। যার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আগামীকাল মহান বিজয় দিবসে। ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবসকে বেছে নেয়া হয়েছে এই কার্যক্রম শুরুর জন্য।

এবার দুই ধাপে হবে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড।

১. দর্শক মতামত
২. দর্শক পছন্দের সেরা পাঁচ খেলোয়াড়ের ভোটিং

যে কেউ পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে ২০১৬ সালের সেরা ক্রীড়াবিদের নাম প্রস্তাব করতে পারবেন। ২৫ ডিসেম্বও পর্যন্ত জানানো যাবে এই মন্তব্য। কুলের ফেসবুক পেজ www.facebook.com/Kool.GetNoticed-এ গিয়ে মন্তব্য লিখতে হবে। এছাড়া বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির ওয়েবসাইটwww.bspa.com.bd-তে গিয়েও মন্তব্য জানানো যাবে।

গবার কমেন্টের ভিত্তিতে সেরা পাঁচ নির্বাচনের পর ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি শুরু হবে ভোটিং। সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত ক্রীড়াবিদ পাবেন পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড। যা ঘোষণাও তুলে দেয়া হবে কুল-বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে।

বিএসপির বার্ষিক সাধারণ সভা ১৭ ডিসেম্বর

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির ২০১৬ সালের সাধারণ সভা ১৭ ডিসেম্বর ২০১৬, শনিবার সকাল ১০টায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরানা ভবনের নিচতলার সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠান: বার্ষিক সাধারণ সভা ২০১৬
তারিখ: ১৭ ডিসেম্বর, শনিবার
সময়: সকাল ১০টা
ভেন্যু: জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (পুরনো ভবন) সম্মেলন কক্ষ (নিচতলা)
পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০

সাধারণ সভায় যথা সময়ে আপনার উপস্থিতি একান্ত কাম্য।

সাধারণ সভার সূচী :
১. রেজিস্ট্রেশন : সকাল ৯.৩০ মিনিট
২. পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত
৩. শোক প্রস্তাব পাঠ ও অনুমোদন
৪. ২০১৫ সালের বার্ষিক সাধারণ সভার কার্যবিবরণী পাঠ ও অনুমোদন
৫. সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপন
৬. অর্থ সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপন
৭. সাংগঠনিক সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপন
৮. শাখা সমিতির কার্যক্রম আলোচনা
৯. রিপোর্ট সমূহের উপর আলোচনা ও অনুমোদন
১০. মুক্ত আলোচনা
১১. বিবিধ
১২. মধ্যাহ্ন ভোজ

চাঁদা পরিশোধের শেষ সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০১৬

তারিখ: ১৫-১১-২০১৬

স্পোর্টসম্যান অব বিএসপিএ ২০১৬ কবিরুল ইসলাম


ডিবিএল-বিএসপিএ ক্রীড়া উৎসব

জমকালো পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেষ হলো ডিবিএল-বিএসপিএ ক্রীড়া উৎসব। মঙ্গলবার ক্যাপ্টেন মনসুর আলী হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস।

দাবা, ক্যারম, টেবিল টেনিস, ব্যাডমিন্টন, শ্যুটিং ও আর্চ্যারি এই ছয় ডিসিপ্লিনে পাঁচদিনব্যপি ক্রীড়া উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল। যেখানে শতাধিক সদস্য অংশ নেন।

সব খেলার সেরাদের মধ্য থেকে রেটিং-এর ভিত্তিতে স্পোর্টস ম্যান অব বিএসপিএ ২০১৬ হয়েছেন কবিরুল ইসলাম। তার হাতে ট্রফি, ডামি চেক ও প্রাইজমানি তুলে দেন প্রধান অতিথি অশোক কুমার বিশ্বাস।

দাবায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মোরসালিন আহমেদ ও রানারআপ হয়েছেন আশরাফুর রহমান মুরাদ। ব্যাডমিন্টন এককে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন জাহিদ মুনীর কল্লোল ও রানারআপ হয়েছেন ফয়সাল তিতুমীর। ব্যাডমিন্টন দ্বৈতে বোরহানউদ্দিন-আরাফাত দাড়িয়া জুটি চ্যাম্পিয়ন ও মোস্তাক আহমেদ খান-কামরুজ্জামান হিরু জুটি রানার্সআপ হয়েছেন। টেবিল টেনিস এককে রুমেল খান চ্যাম্পিয়ন ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিন রানারআপ হয়েছেন। দ্বৈতে রুমেল খান-মাহমুদুন্নবী চঞ্চল জুটি চ্যাম্পিয়ন ও সুদীপ্ত আহমদ আনন্দ-মোহাম্মদ জুবায়ের জুটি রানার্সআপ হয়েছেন। ক্যারম এককে কবিরুল ইসলাম চ্যাম্পিয়ন আরিফ সোহেল রানারআপ হয়েছেন। দ্বৈতে এসবি চৌধুরী শিশির-মজিবুর রহমান জুটি চ্যাম্পিয়ন, বোরহানউদ্দিন-আরাফাত দাড়িয়া জুটি রানার্সআপ হয়েছেন। শ্যূটিং-এ কবিরুল ইসলাম চ্যাম্পিয়ন ও মোয়াজ্জেম হোসেন রোকন রানারআপ হয়েছেন। আরচ্যারিতে অলক হাসান চ্যাম্পিয়ন ও জাহিদ মুনীর কল্লোল রানারআপ হয়েছেন।

পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি জনাব মোস্তফা মামুন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ান উজ জামান রাজিব। উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া সাব কমিটির চেয়ারম্যান এসবি চৌধুরী শিশির ও সচিব মাহবুব সরকার।

 

ডিবিএল-বিএসপিএ স্পোর্টস কার্নিভাল শুক্রবার উদ্বোধন

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির সম্মানিত সদস্যদের জন্য, ১১-১৫ নভেম্বর ‘ডিবিএল- বিএসপিএ স্পোর্টস কার্নিভাল ২০১৬’ আয়োজন করা হয়েছে। কার্নিভালে দাবা, শুটিং, আরচ্যারি, টেবিল টেনিস (একক ও দ্বৈত), ব্যাডমিন্টন (একক ও দ্বৈত) এবং ক্যারম (একক ও দ্বৈত) খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

স্পোর্টস কার্নিভালের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে ১১ নভেম্বর, শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায়। সমিতি কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন সমিতির সভাপতি জনাব মোস্তফা মামুন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সমিতির সদস্যদের উপস্থিত থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠান: ডিবিএল-বিএসপিএ স্পোর্টস কার্ণিভাল উদ্বোধন
তারিখ: ১১ নভেম্বর, শুক্রবার
সময়: সকাল ১০.৩০ মিনিট
ভেন্যু: বিএসপিএ কার্যালয়, রুম নং-১৪-১৫, দোতলা, বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম, ঢাকা

আপনাদের সহযোগিতা একান্ত কাম্য।

ধন্যবাদান্তে

রেজওয়ান উজ জামান রাজিব
সাধারণ সম্পাদক

হ্যান্ডবল রিপোর্টিং কর্মশালা সমাপ্ত

বাংলাদেশ ক্রীড়ালেখক সমিতির আয়োজনে বুধবার হ্যান্ডবল রিপোর্টিং কর্মশালা অনুষ্ঠিত হলো। বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ডাচ-বাংলা অডিটরিয়ামে এই আয়োজনে ক্রীড়া সাংবাদিক ও ক্রীড়ালেখরা অংশ নেয়। অনুষ্ঠানে পৃষ্ঠপোষকতা করছে ব্লেজার বিডি। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসাদ্জ্জুামান কোহিনূর। উপস্থিত ছিলেন অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ কাজী রাজিবউদ্দিন আহমেদ চপল। রিপোর্টিং কর্মশালা পরিচালনা করেন কামরুল ইসলাম কিরণ ও নাসিরউল্লাহ লাভলু।

৯ অক্টোবর থেকে ঢাকায় অনুষ্ঠেয় আইএইচএফ কাপকে সামনে রেখে এই কোর্স আয়োজন করা হয়। যেখানে হ্যান্ডবলের বিভিন্ন নিয়ম, খেলার মাঠের সাইজ, কৌশল ও বিভিন্ন টার্ম সম্পর্কে সাংবাদিকদের ধারণা দেয়া হয়। গত মাসে বিএসপিএ ওয়াকর্শপের অধীনে প্রথম কোর্সে হকির আইনকানুন সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়।

আপনার সহযোগিতা একান্ত কাম্য।

রেজওয়ান উজ জামান রাজিব
সাধারণ সম্পাদক

Photo Gallery

Glorious Moment

More Photos